প্রযুক্তি

দুনিয়াতে এখনো যে ৪ জন নবী জীবিত আছেন

মানবজাতির হেদায়েতের জন্য মহান আল্লাহ তা’লা যুগে যুগে বহু নবী রাসূল পাঠিয়েন।আল্লাহ তা’লা পৃথিবীতে মোট ১ লক্ষ ২৪ হাজার নবী এবং রাসূল পাঠিয়েছেন।নবী রাসূলদের মূল উদ্দেশ্য ছিল ইসলামের বাণী সকলের কাছে পৌঁছে দেওয়া। সর্বশেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) আগমনের মাধ্যমে নবুয়তের এই ধারা চিরতরে বন্ধ করে দেওয়া হয় আল্লাহ তা’লার পক্ষ থেকে।এই ১ লক্ষ ২৪ হাজার নবীর মধ্যে ৪ জন্য নবী  আছেন যারা এখনও  জীবিত আছেন এবং যাদেরকে আল্লাহ তা’আলা জীবিত অবস্থায় তুলে নিয়েছেন।সেই চারজন নবী হলেন- হযরত খিজির (আঃ), হযরত ইলিয়াস (আঃ),হযরত ঈদ্রিস (আঃ), হযরত ঈসা (আঃ)।এদের মধ্যে দুইজন জমিনে অবস্থান করছেন এবং বাকি দুইজন  আকাশে জীবিত অবস্থায় আছেন।হযরত খিজির (আঃ) ও হযরত ইলিয়াস (আঃ) জমিনে অবস্থান করছেন।তাদের সম্পর্কে ইসলামী দার্শনিকরা  বলে থাকেন যে তারা প্রতিবছর হজ্জের জন্য মক্কায়  আসেন এবং সেখানে তারা জমজমের পানি পান করেন । যার কারণে সারা বছর তাদের কিছু খাওয়ার প্রয়োজন হয় না।

হযরত ইলিয়াস (আঃ) কে পাহাড় এবং পশু পাখিদের উপর শাসন করার অধিকার দেওয়া হয়েছিল অপরদিকে, হযরত খিজির (আঃ)কে নদী ও সাগরের শাসন ক্ষমতা দান করা হয়েছিল।হযরত ইলিয়াস (আঃ)কে আল্লাহ তা’লা ৭০ জন নবীর শক্তি দান করেছিলেন।যখন তিনি রাগান্বিত হয়ে যেতেন তখন তিনি অনেকটা মূসা (আঃ)এর মতো আচারণ করতেন।ইসলামিক বিভিন্ন বইয়ের তথ্যমতে,হযরত ইলিয়াস (আঃ) ও হযরত খিজির (আঃ) সম্পূর্ণ রমজান মাস বায়তুল মোকাদ্দাসে কাটান এবং প্রতি বছর হজ্জ করার জন্য মক্কায় তাসরীফ নিয়ে আসেন ।

এইতো গেল জমিনে অবস্থানরত দুইজন নবীর আলোচনা।এবার তবে আলোচনা করা যাক, আসমানে অবস্থানরত দুইজন নবীর সম্পর্কে।আসমানে অবস্থানরত দুইজন নবী হলেন – হযরত ঈদ্রিস (আঃ) ও হযরত ঈসা (আঃ)। হযরত ঈদ্রিস (আঃ) ই সর্বপ্রথম ব্যক্তি যিনি কাপড় বুনেছিলেন এবং সেলাই করেছিলেন এছাড়াও তিনিই প্রথম কলম দিয়ে লেখাপড়া করা এবং জ্ঞান অর্জন করা শিক্ষা দিয়েছিলেন।হযরত ইদ্রিস (আঃ)কে আল্লাহ তা’লা জীবিত অবস্থায় আকাশে তুলে নিয়েছেন এবং তিনি জীবিত অবস্থায় জান্নাতে উপস্থিত আছেন।অপরদিকে, হযরত ঈসা (আঃ) কে আল্লাহ তা’লা দুনিয়াতে প্রেরণ করেছিলেন বনি ইসরাইল জাতির পথ প্রদর্শক হিসেবে। ঈসা (আঃ) ইসলামের দাওয়াত দেওয়া শুরু করলে বনি ইসরাইলরা তার বিরোধীতা শুরু করে এবং তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে।পরিকল্পনা অনুসারে তারা ঈসা(আঃ) কে হত্যা করতে যখন তার বাড়িতে যায় তখন আল্লাহ তা’লা জীবিত অবস্থায় ইসা (আঃ) কে আকাশে তুলে নেন।কিয়ামতের পূর্বে যখন ইমাম মাহাদী দুনিয়াতে আগমন করবেন তখন হযরত ঈসা (আঃ) ও পুনরায় পৃথিবীতে আসমান থেকে অবতরণ করবেন এবং তিনি ইমাম মাহাদী এর সঙ্গী হয়ে পৃথিবীতে ইসলাম প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করবেন।

Show More

এই জাতীয় আরো পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button