প্রযুক্তি

বিশ্বের সর্বোচ্চ গতিসম্পন্ন ৭ টি ট্রেন

আধুনিক বিশ্বে জ্ঞান, বিজ্ঞান যেমন পাল্লা দিয়ে অগ্রতি সাধন করছে ঠিক তেমনি সব কিছুর সাথে পাল্লা দিয়ে চলছে কোন দেশ সর্বোচ্চ গতি সম্পন্ন ট্রেন তৈরি করতে পারে তার প্রতিযোগিতা।এ প্রতিযোগিতায় শুরুর দিকেই রয়েছে চীন,জাপান,ইতালি,ফ্রান্স ও স্পেন।সারা বিশ্বে এখন সুপার ফাস্ট অনেক ট্রেন রয়েছে।যা মাত্র কয়েক ঘন্টা লম্বা দুরত্ব পেরিয়ে নিমিষে পৌছে যেতে পারে গন্তব্যে।এসব ট্রেনকে ভূ-পৃষ্ঠের বিমান বলে মনে করা হয়।তবে চলুন যেনে নেওয়া যাক এমন কিছু দ্রুতগতিসম্পন্ন ট্রেনের ব্যাপারে।

১.সানহাই ম্যাগেলভ ট্রেন


এটির গতিবেগ ঘণ্টায় ৬০০ কিলোমিটার। সম্পূর্ণ নিজস্ব পদ্ধতিতে তৈরি ট্রেনটি চীনের উপকূলীয় শহর কিংডাওয়ে উৎপাদন করা হয়েছে। এটি বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগামী স্থলযান।ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক শক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ম্যাগেলভ ট্রেনটি লাইনের উপর দিয়ে ভেসে চলাচল করে। এক্ষেত্রে রেললাইনের সঙ্গে ট্রেনের বডির কোনো সংযোগ নেই।ম্যাগেলভ ট্রেনের মাধ্যমে মাত্র আড়াই ঘণ্টায় বেইজিং থেকে সাংহাই পৌঁছানো সম্ভব।অন্যদিকে, এই দূরত্ব পাড়ি দিতে বিমানে করে সময় লাগে ৩ ঘণ্টা।

২.হারমোনি সি আর এইচ ৩৮০ এ,চীন

পৃথিবীর ২য় দ্রুতগামী ট্রেন হারমোনি সি আর এইচ ৩৮০ এ।এ ট্রেন ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৪৮৬ কিলোমিটার বা ৩০২ মাইল গতিতে চলতে পারে।অক্টোবর ২০১০ সাল থেকে চীনের সরকারি রেলওয়ে সংস্থা চায়না রেলওয়ের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হচ্ছে এ ট্রেনটি।মাছের মাথার মতো আকৃতি,এ ট্রেনকে দ্রুতগতিতে চলার সময় এড়োডাইনামিক চাপ থেকে রক্ষা করে।এ ট্রেন সম্পুর্নভাবে ঝাঁকুনি মুক্ত।

৩.ফুক্সিং হাও সি আর ৪০০,চীন

বিশ্বের তৃতীয় সর্বোচ্চ গতিসম্পন্ন ট্রেনের মালিক ও চীন।ফুক্সিং হাও সি আর ৪০০ হলো একটি হাই-স্পিড বুলেট ট্রেন যা চায়না রেলওয়ের সহযোগিতায় চাইনিজ কোম্পানি সি আর আর সি দ্বারা ডিজাইন ও তৈরি করা হয়েছে। চায়না রেলওয়ে দ্বারা পরিচালিত, ফুক্সিং হাও হাই-স্পিড ট্রেনের স্ট্যান্ডার্ড সংস্করণটি আনুষ্ঠানিকভাবে বেইজিং-সাংহাই হাই-স্পিড রেললাইনে ২০১৭ সালের জুন মাসে চালু করা হয়েছিল।এর সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ২৬১মাইল বা ৪২০ কিলোমিটার। এই বুলেট ট্রেন যাত্রীদের একটি অত্যাধুনিক, উচ্চ-গতির এবং সমৃদ্ধ ভ্রমণ অভিজ্ঞতা প্রদান করে।

৪.সিমেন্স ভেলারে এভি এস ১০৩,স্পেন

স্পেনের সবচেয়ে দ্রুতগামী ট্রেন সিমেন্স ভেলারে এভি এস ১০৩ ।এর গতিবেগ ঘন্টায় ৪০০ কিলোমিটার। ২০০৭ সাল থেকে স্প্যানিশ ন্যাশনাল রেলওয়ের তত্তাবধানে পরিচালিত হচ্ছে এটি।

৫.এভিজি ইটালো,ইতালি

ইতালির সবচেয়ে দ্রুতগামী ট্রেন এভিজি ইটালো।এমনকি এটি ইউরোপেরও দ্রুততম অপারেটিং ট্রেন। এটির সর্বোচ্চ অপারেশনাল গতি ঘন্টায় ৩৬০ কিলোমিটার।ইতালিয়ান কোম্পানি এনটিবি এর পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে।এ ট্রেনে রয়েছে মোট ১১ টি বগি।এটি রোম এবং নেপলসের মধ্যে সংযোগ স্থাপনকারী।

৬.ই-৫ শিনকানশেন হায়াবুসা,জাপান

ই-৫ সিরিজের ট্রেনগুলোর মধ্যে হায়াবুসাই সর্বোচ্চ গতিসম্পন্ন। এর সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ২২৪ মাইল বা ৩৬০ কিলোমিটার।৭৩০ জন যাত্রীবহন করতে পারে এ ট্রেন।হাই স্পিড ট্রেন তোহোকু শিনকানসেনের উপর চলে, একটি জাপানি হাই স্পিড লাইন যা টোকিওকে আওমোরি প্রিফেকচারের সাথে সংযুক্ত করে।

৭.টিজিভি ডুপ্লেক্স,ফ্রান্স

ফ্রান্সের দ্রুততম ট্রেন টিজিভি ডুপ্লেক্স ।এটি ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৩১৯ কিলোমিটার বেগে ছুটতে পারে।ডাবল ডেকের এই ট্রেনগুলো সংযুক্ত রয়েছে ফ্রান্সের সকল প্রধান শহরগুলোকে।

Show More

এই জাতীয় আরো পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button