সাম্প্রতিক

কে এই আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান! কিভাবে উধাও হলেন তিনি!

নিখোঁজের আট দিন পর সন্ধান মেলেছে আলোচিত ধর্মীয় বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান এবং তাঁর সফর সঙ্গীদের। উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ের জনপ্রিয় বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান গত ১০ জুন ২০২১, দিবাগত রাত থেকে নিখোঁজ ছিলেন বলে অভিযোগ করেছে তাঁর পরিবার। 

কিন্তু এই নিখোঁজ রহস্যের জট এখনো খোলা সম্ভব হয়নি। কয়েক মিনিটের ব্যবধানে ঠিক যেনো বাতাসে মিলয়ে গিয়েছিলেন ৪ জন মানুষ!

যদিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আদনানের অনুসারীদের দাবি ইচ্ছাকৃত ভাবে গুম করা হয়েছে তাকে। আর তা নিয়েই সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে চলছে তর্ক-বিতর্কের ঝড়। 

কিন্তু কে এই আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান!

হঠাৎ করে কিভাবে উধাও হলেন তিনি!

সবার কাছে আবু ত্বহা মুহাম্মদ আদনান নামে পরিচিত হলেও তার আসল নাম  মো. আফছানুল আদনান। ৩১ বছর বয়সী এই তরুণ বক্তার বাড়ী রংপুর জেলায়।

একসময় তুখোড় ক্রিকেটার হিসেবে রংপুরের ক্রিকেট অঙ্গনে সবার পরিচিত মুখ ছিলেন তিনি।  রংপুর লায়ন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের গণ্ডি পেরিয়ে ভর্তি হন রংপুর কারমাইকেল কলেজে। সেখান থেকে দর্শনে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করেন তিনি। স্নাতকে পড়ার সময় থেকেই ধর্মের প্রতি তাঁর ঝোঁক বাড়তে থাকে। স্নাতকোত্তর শেষে বাড়ির পাশে আল জামেয়া আসসালাফিয়া মাদরাসায় পড়াশুনা করছেন আদনান।

বাবার মৃত্যুর পর রংপুর নগরীর সেন্ট্রাল রোডের নানার বাড়িতে বড় হয়েছেন তিনি। ধর্মীয় বিষয়ে প্রচুর বই পড়তেন এবং গবেষণা করতেন তিনি। অল্পদিনেই হয়ে ওঠেন একজন ভালো ইসলামী বক্তা। তিনি উগ্রবাদকে সমর্থন করতেন না বলেও দাবি করেছেন স্বজনরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাঁর ওয়াজের ভিডিওগুলো খুব সমাদৃত হয়েছিল। আর দশজন বক্তার মতো গতানুগতিক ছিলেন না আবু ত্ব-হা। সময় উপযোগী আধুনিক যুগের প্রেক্ষাপটের সাথে মিল রেখে তার গবেষণাধর্মী কথাগুলো প্রশংসার যোগ্য।

অত্যন্ত রুচিশীল, পরিষ্কার ও মানসম্মত বাংলায় চমৎকার বাচনভঙ্গিতে কথা বলেন তিনি। প্রস্তুতি নিয়ে, গুছিয়ে, বিষয়ের মধ্যে থেকেই কথা বলেন এই জনপ্রিয় বক্তা। তার উচ্চারণে ও আভিজাত্য স্পষ্ট। প্রচলিত ওয়াজের ভঙ্গি বদলে কোরাআনের আয়াত ও হাদিসের আরবি ইবারতও আনেন বক্তৃতায়। অনেকেই মনে করেন, এ পর্যন্ত বাংলাদেশী কোনো ইসলামী স্কলার বর্তমান যুগের টেকনোলোজির সাথে মিল রেখে কোরআন এবং হাদিসের বিষয় গুলো আদনানের মতো বুঝিয়ে বলেননি সাধারণ মানুষকে।

গত ১০ জুন থেকে কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিলো না  এই অসাধারণ মানুষটির! শুধু তিনি ই নন, তাঁর সঙ্গে আরো নিখোঁজ ছিলেন তার সফরসঙ্গী আব্দুল মুকিত, মোহাম্মদ ফিরোজ ও গাড়ি চালক আমির উদ্দিন।  এ ঘটনায় শুক্রবার বিকালে রংপুর মহানগরীর কোতোয়ালি থানায় ত্ব-হার খোঁজ চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তার মা আজেদা বেগম। নিখোঁজ অন্য ৩ জনের পরিবারও রয়েছেন চরম উৎকণ্ঠায়।

ঠিক কি হয়েছিলো সেদিন জানতে চাইলে আবু ত্ব-হা’র স্ত্রী সাবিকুন্নাহার জানান, রংপুরের বাড়ি থেকে ওই দিন বগুড়ায় একটি ধর্মীয় সভায় যোগ দেওয়ার কথা ছিল আদনানের। এরপর ঢাকায় আসার কথা। বিকেল ৪টার দিকে রংপুর থেকে একটা কারে করে বগুড়ার উদ্দেশে বের হন তিনি। ওই গাড়িটির মালিক রংপুরের আমির উদ্দীন, তিনিই চালান। সাধারণত রংপুর থেকে ঢাকা যাতায়াতের ক্ষেত্রে আমির উদ্দীনের গাড়িটি ব্যবহার করতেন আদনান। রওনা দেওয়ার কিছুক্ষণ পরেই আদনান তার স্ত্রী কে ফোন দিয়ে বলেন, “আমাদের প্রাইভেটকারের পেছনে দুটি বাইক আমাদেরকে ফলো করছে। আমার জন্য দোয়া করো, আমি যেন ঠিকভাবে বাসায় পৌঁছাতে পারি।” পরে হয়তো ভয়ে বা উদ্বিগ্ন হয়ে তিনি বগুড়ার সভায় যোগ না দিয়ে ঢাকার পথ ধরেন।

তার সঙ্গে আব্দুল মুহিত ও মোহাম্মদ ফিরোজ নামে যে দুজন ছিলেন তারা মূলত আদনানকে বগুড়ার সভায় নিতে এসেছিলেন। পরে পরিস্থিতি বুঝে তারা আদনানকে ঢাকা পর্যন্ত এগিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। রাত আড়াইটার দিকে তার গাড়ি গাবতলী পৌঁছেছে বলে স্ত্রীকে জানান আদনান। এসময় গাবতলী এলাকার লোকেশন ও স্ত্রীর ফোনে পাঠান আদনান। এরপর থেকেই আর কোনো যোগাযোগ নেই।

গুগল ম্যাপে দেখা গেছে, স্ত্রীর বাসা থেকে তার গাড়ির দূরত্ব ছিল ৬.৪ কিলোমিটার দূরে। সেখানে পৌঁছাতে সময় লাগতো ১৮ মিনিট। তিনি তাকে ফোন করে ৪ জনের খাবার রান্না করতে বলেন এবং অপেক্ষা করতে বলেন। কিন্তু অপেক্ষা আর শেষ হয় না!

এর কিছুক্ষণ পর থেকেই তার ফোন বন্ধ, তিনি নিঁখোজ।

আদনানের সঙ্গে কারো শত্রুতা ছিলো কিনা এ ব্যাপারেও কোনো তথ্য জানা সম্ভব হয়নি। আদনানের স্ত্রী সাবিকুন্নাহার বলেন, “ধর্মীয় মতবাদ নিয়ে আলেমদের একটি পক্ষের সঙ্গে তার মতবিরোধ তৈরি হয়। এসব কারণে তিনি পরিচিত আলেমদের কাছে সাহায্য চেয়েও কোনো সাড়া পাননি। বরং সাধারণ মানুষ ও অনুসারীরা আদনানকে ফিরে পেতে অনলাইনে অনেক বেশি সোচ্চার।”

যাই হোক, এই ৮ দিন তিনি কোথায় ছিলেন সে ব্যাপারে এখনো কোনো তথ্য উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। ত্ব-হার শ্যালক জাকারিয়া হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, আবু ত্ব-হা বর্তমানে তার শ্বশুর বাড়িতে রয়েছেন। এতদিন ত্ব-হা কোথায় ছিলেন, কীভাবে ফিরলেন সে সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানাতে পারেননি তিনি।

লেখক- সায়মা আফরোজ (নিয়মিত কন্ট্রিবিউটর AFB Daily)

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

Show More

এই জাতীয় আরো পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button